1. darpon.tv@gmail.com : News Desk : News Desk
  2. sobuj033@gmail.com : sobuj :
আবারও এলো বন্যা ॥ বাড়ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নদীর পানি ॥ ভাঙনের শংকায় এলাকাবাসী - দৈনিক চাঁপাই দর্পণ
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০৯:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রধান শিক্ষকের কাছে যৌন নির্যাতনের শিকার শিক্ষার্থী ॥ ধামাচাপা দিতে নানা ষড়যন্ত্র মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি-নিরাপদ উৎপাদন ও যান্ত্রীকিকরণে চাঁপাইনবাবগঞ্জে কর্মশালা শিবগঞ্জে মাদকের অপব্যবহার রোধে কর্মশালা চাঁপাইনবাবগঞ্জে মহানন্দায় কলেজছাত্র নিখোঁজের ৫ ঘন্টা পর লাশ উদ্ধার চাঁপাইনবাবগঞ্জে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীসহ ৭৫ শিক্ষার্থীর মাঝে সাইকেল বিতরণ ৫৯ বিজিবি’র আজমতপুর সীমান্তে ইয়াবা-হেরোইন উদ্ধার শিবগঞ্জে তথ্য আপার উঠান বৈঠক নলডাঙ্গায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে কর্মশালা স্বপ্নের পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে জয়পুরহাটে আনন্দ শোভাযাত্রা পাঁচবিবি পৌর নির্বাচনে আবারো নৌকার মাঝি-হাবিব

আবারও এলো বন্যা ॥ বাড়ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নদীর পানি ॥ ভাঙনের শংকায় এলাকাবাসী

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২
  • ৭১ বার পঠিত

আবারও এলো বন্যা ॥ বাড়ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নদীর পানি ॥ ভাঙনের শংকায় এলাকাবাসী

আবারও সময় হলো বন্যার। হুহু করে বাড়ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নদীগুলোর পানি। নদী ভাঙ্গনে ভিটে-মাটি হারানোর আশংকায় দুশ্চিন্তাগ্রস্থ নদী তীরবর্তী গ্রামের মানুষ। বিভিন্ন সুত্র ও সরজমিনে জানা গেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জে পদ্মা, মাহনন্দা ও পূর্ণভবা নদীতে পানি বাড়ছে। পদ্মা নদীতে পানি বাড়ায় চরাঞ্চলের আবাদি জমিগুলোতে ভাঙন শুরু হয়েছে। গত কয়েক ধরে ভাঙন কবলিত এলাকা গুলোতে জিও ব্যাগ দিয়ে অস্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করে দায়সারছেন স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড বলে অভিযোগ পদ্মা তীরবর্তী এলাকার ভূক্তভোগী পরিবারগুলোর। পদ্মা বামতীর সংরক্ষন প্রকল্পের কাজ ধীরগতিতে চলায় গতবছর চরবাগডাঙ্গা এলাকার অনেক ফসলী জমি ও ঘরবাড়ি নদীতে বিলিন হয়েছে। এবছরও প্রকল্পের কাজ তেমন একটা সম্পন্ন হয়নি বলেও জানা গেছে।

প্রকল্প ঠিকাদারদের প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ না দেয়ার প্রকল্প বাস্তবায়নে এমন ধীরগতি বলেও জানা গেছে। আবারও ভাঙ্গন কবলিত এলাকার মানুষ দিন কাটাচ্ছেন দুশ্চিন্তায়। চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড সুত্র মতে, গেল ২৪ ঘন্টায় পদ্মা নদীতে দশমিক ৩০ মি.মি, মহানন্দায় দশমিক ২৭ মি.মি, আর পূর্ণভবায় দশমিক ১০ মি.মি পানি বেড়েছে। পদ্মায় বিপৎসীমা ধরা হয়েছে ২২ দশমিক ৫০ মি.মি, বর্তমানে আছে ১৪ দশমিক ৬৮ মি.মি। মহানন্দায় বিপৎসীমা ধরা হয়েছে ২১ দশমিক ০০ মি.মি, আর ১৫ দশমিক ০১ মি.মি পানি আছে। পূর্ণভবায় ২২ দশমিক ০০ মি.মি বিপৎসীমা ধরা হয়েছে। তবে বর্তমানে ওই নদীতে পানি আছে ১৫ দশমিক ৯৭ মিলি মিটার। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১০-১২ দিন থেকে পদ্মায় পানি বাড়ায় ভাঙন দেখা দিয়েছে। জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার দূর্লভপুর ইউনিয়ের মনোহরপুর থেকে নামোজগন্নাথপুর পর্যন্ত নদী গর্ভে বিলিন হচ্ছে আবাদি জমি। স্থানীয়রা বলছেন, দ্রুত এ ভাঙন রোধ না করলে, গত বছরের মতো এবারও হারাতে হবে ভিটামাটিসহ আবাদযোগ্য হাজার হাজার বিঘা জমি। মনোহরপুর এলাকার বাসিন্দা মুরশালিন বলেন, গত বছর আমাদের অনেক ধানিজমি নদীতে নেমে গেছে। ওইসব ধানিজমি থেকে ৭-৮ মাসে চাল উৎপাদন হতো, গোখাদ্যও হতো।

আমার আরেক প্রতিবেশির ২-৩ বিঘা জমি নেমে গেছে পদ্মায়। অনেকজন বাড়ি, ভিটামাটি হারিয়েছে। কিন্তু আমাদেরকে শান্তনা দেয়ার জন্য জিওব্যাগ দিয়ে অস্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করেছিল উর্ধতন কর্মকর্তারা। কিন্তু পনেরো-বিশ দিনের মাথায় ওই জিওব্যাগগুলোও নদীতে নেমে গেছিল। শিমুল নামের এক যুবক ভাঙ্গনের কথা স্বীকার করে বলেন, মনোহরপুর থেকে জগন্নাথপুর পর্যন্ত ভাঙন ধরেছে। নদীর পাড়গুলো বেলেমাটি হওয়ায় নিমিষেই পানির স্রোতের ধাক্কায় নদীতে নেমে যাচ্ছে। গতবছরও অনেকজন নদীর পাড় থেকে বাড়ি ঘর টেনে নিয়েছিল। অনেকের ভিটামাটি, ধানিজমি, আম বাগান নদীতে নেমে গেছে। জনবসতির কাছাকাছি এবার নদীর পাড়, তীব্রভাঙনে এবছরও জনবসতিও বিলিন হয়ে যাবে। দূর্লভপুরের মনোহরপুর এলাকার শাহিন বলেন, গত বছরে মনোহপুরে ভাঙন ধরেছিল, এবারও ভাঙন শুরু হয়েছে। নদীতে পানি বাড়লে কিংবা কমলে ভাঙন শুরু হয়। একই এলাকার মতিউর রহমান বলেন, প্রতিবছরই পদ্মায় ভাঙন ধরে, স্থায়ীভাবে বাঁধ নির্মাণ না হলে জিওব্যাগ দিয়ে ভাঙনরোধ করা সম্ভব নয়। এভাবে শুধু খরচ হচ্ছে, এলাকাবাসীর কোন উপকারে আসছেনা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোখলেছুর রহমান জানান, পদ্মাপাড়ের ১০কিলো মিটার এলাকা নদীর ভাঙনের কবলে পড়ে। ইতোমধ্যে কিছু কিছু জায়গায় ভাঙন শুরু হয়েছে। ওইসব ভাঙন কবলিত এলাকায় কাজ শুরু করার অনুমতি পাইনি এখনও। অনুমতি স্বাপেক্ষে ভাঙন রোধে কাজ শুরু করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
Copyright All rights reserved © 2022 Chapaidarpon.com
Theme Customized BY Sobuj Ali
error: Content is protected !!