1. ronju@chapaidarpon.com : Md Ronju : Md Ronju
  2. sobuj033@gmail.com : sobuj :
ভোলাহাটে চাচাকে বেধড়ক পেটালো সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার - দৈনিক চাঁপাই দর্পণ
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ০২:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের মন্ডপ পরিদর্শণ- চাঁপাইনবাবগঞ্জে মন্ডপে দশমী পূজার মাধ্যমে দেবী বিসর্জন চাঁপাইনবাবগঞ্জে ডাকাতের ছুরিকাঘাতে কৃষকের মৃত্যু শিবগঞ্জে ডাঃ শিমুল এমপি’র পূজামন্ডপ পরিদর্শন-আর্থিক সহায়তা প্রদান শিবগঞ্জের প্রতিটি মন্দির কে আধুনিক করা হবে-সৈয়দ নজরুল এখনও অজানা কানসাটের গৃহবধূ আঁখি’র নিখোঁজের রহস্য শিবগঞ্জে ব্লাড গ্রুপিংসহ ৪’শ রোগীর বিনামুল্যে সেবা প্রদান নাটোরের সেলিনা খাতুন শ্রেষ্ঠ প্রধান শিক্ষিক চৌকা সীমান্তে ৫৯ বিজিবি’র ফেন্সিডিল উদ্ধার নাটোরে পুরোহিত এবং আনসার সদস্যর মৃত্যু তোহিদুল আলম (টিয়া) শ্রেষ্ঠ বিদ্যোৎসাহী সমাজকর্মী নির্বাচিত ॥ বিভিন্ন মহলের সংবর্ধনা

ভোলাহাটে চাচাকে বেধড়ক পেটালো সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার

ভোলাহাট প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২২
  • ৯১ বার পঠিত

ভোলাহাটে চাচাকে বেধড়ক পেটালো সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার

ভোলাহাটের ফুটানীবাজারে প্রকাশ্য দিবালোকে পিতৃতুল্য আপন চাচাকে বেধড়ক পিটিয়েছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম ও তার ভাই মিজানুর রহমান মিজু। গত ১০ আগষ্ট বুধবার বিকেলে ভোলাহাট উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান প্রভাষক মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম আনোয়ার ও তার ভাই চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মিজানুর রহমান মিজু ফুটানীবাজারে হাজারো মানুষের সামনে তাদের আপন চাচা আলেপনুর বিশ্বাস আলেপ (৭০) কে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছেন। তিনি ভোলাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন।
আলেপ বিশ্বাস অভিযোগ করে বলেন, বুধবার বিকেলে আমার ভাতিজা আনোয়ারকে আমি আমার অংশের জমির ওপর যে ঘর রয়েছে, তা সরানোর কথা বলতে গেলে তিনি বর্ষা মৌসুমের আগে ঘর সরাতে পারবেননা বলে জানান। আমি তাকে পুনরায় বলতে গেলে আমার উপর চড়াও হয়ে আমাকে বেধড়ক পেটাতে থাকেন আমার দুই ভাতিজা। পরে আমার ছেলে মওদুদ এসে আমাকে রক্ষা করতে এলে তাকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। মওদুদ এখন রাজশাহী সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বলে জানান। তিনি বলেন, আমার মত বয়োবৃদ্ধ আপন চাচাকে সন্ত্রাসী কায়দায় যে অমানবিক ও নিষ্ঠুর নির্যাতন করেছে তার আমি বিচার চাই। তিনি অভিযোগ করে আরও বলেন, আমার ভাতিজারা আমিনুল হাজী এমপির ক্ষমতা দেখিয়ে আমার চিকিৎসা করাতে পর্যন্ত বাধাগ্রস্ত করে। আইনগত পদক্ষেপ বিষয়ে তিনি বলেন, আমার একমাত্র ছেলে মওদুদ সুস্থ হয়ে বাড়ি আসার পর এবিষয়ে সিদ্ধান্ত নিব।
এব্যাপারে আনোয়ারুল ইসলামের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। অন্যদিকে, ভোলাহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মিজানুর রহমান মিজুর একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
Copyright All rights reserved © 2022 Chapaidarpon.com
Theme Customized BY Sobuj Ali
error: Content is protected !!